IMPORTANT UPDATEগুরুত্বপূর্ণ খবর

এবার আধার সংশোধনে বাড়তি টাকা নিলে দিতে হবে মোটা অংকের জরিমানা, নির্দেশ দিলো আদালত

এবার আধার সংশোধনে বাড়তি টাকা নিলে দিতে হবে মোটা অংকের জরিমানা: অনেক ক্ষেত্রে অভিযোগ দেখা দিয়েছে যে, আধারের বিভিন্ন পরিষেবা সাইমন ধরুন; আধারে নাম নথিভুক্তকরন, তথ্য সংশোধন, মোবাইলের সঙ্গে আধারের লিঙ্ক ইত্যাদিতে আধার কর্তৃপক্ষ বেঁধে দেওয়ার খরচের থেকে বেশি টাকা নেওয়ার। এমন ক্ষেত্রে অভিযুক্ত সংস্থা বা ব্যাক্তির বিরুদ্ধে করা শাস্তির ব্যাবস্থা করেছে UIDAI । গত বুধবার সেকথা সংসদে জানালো কেন্দ্র।

Join Our WhatsApp Group
Join Our Telegram channel
Visit Exam Preparation
Join Our Facebook Group

আধার সংশোধনে বাড়তি টাকা নিলেই দিতে হবে মোটা অংকের জরিমানা

আধার সংশোধনে বাড়তি টাকা নিলে দিতে হবে মোটা অংকের জরিমানা
আধার সংশোধনে বাড়তি টাকা নিলে দিতে হবে মোটা অংকের জরিমানা

অন্যদিকে আবার বিনামূল্যে আধার তথ্য সংশোধনের সুবিধা আজ শেষ হয়ে যাচ্ছে এবং এর আগে এই সময়সীমা 14 সেপ্টেম্বর থেকে বাড়িয়ে 14 ডিসেম্বর পর্যন্ত। গত বুধবার লিখিত জবাব এ কেন্দ্রীয় বৈদ্যুতিন ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখর মহাশয় জানান যে, স্বীকৃত সংস্থাগুলিকে আঁধারের বিভিন্ন পরিষেবা দেওয়ার জন্য বাড়তি চার্জ না নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আধার কর্তৃপক্ষ আধার কর্তৃপক্ষ।

কিন্তু এইসব নিয়মকে অমান্য করে যদি কোন সংস্থা বা ব্যক্তি অতিরিক্ত টাকা নিয়ে থাকে এবং তা নিয়ে অভিযোগ উঠলে তাহলে তার বিরুদ্ধে বিশেষ তদন্ত হবে বলে জানা গিয়েছে। পরে অভিযোগ প্রমাণিত হলে অভিযুক্ত সংস্থাকে 50,000 টাকা জরিমানা দিতে হবে এবং সেই সঙ্গে সামরিক বরখাস্ত করা হবে সেই অপারেটরকে।

যদি কোন ব্যক্তি মনে করে এই নিয়ে অভিযোগ করবে তাহলে তিনি আধার এর অফিসিয়াল টোল ফ্রি নম্বর 1947 এ কল করে কিংবা আধারের official email আইডিতে ইমেইল করে তার অভিযোগ জানাতে পারে। অন্যদিকে আবার, আধার নম্বর তৈরির পরে বহু বছর পেরিয়ে গিয়েছে যে সমস্ত গ্রাহকের তাদের আগেই তথ্য সংশোধন বা যাচাই করতে বলেছিল আধার কর্তৃপক্ষ বা UIDAI । অনলাইনে সেই পরিষেবা খুব কম সময়ের জন্য একদম বিনামূল্যে করা যাচ্ছিল। এক দফা সময় সীমা বাড়িয়ে ১৪ই ডিসেম্বর করেছিল আধার কর্তৃপক্ষ এই আপডেটের।

আরও পড়ুন: মাধ্যমিক পরীক্ষা নিয়ে এবার বড়োসড়ো সিদ্ধান্ত নিল পর্ষদ

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button