NEWS UPDATE

রেশন কার্ড থাকলেই আজই সাবধান হয়ে যান : যদি এই কাজ করে ফেলেন তাহলেই পড়তে হবে বিপদের মুখে

রেশন কার্ড থাকলেই আজই সাবধান হয়ে যান : যদি এই কাজ করে ফেলেন তাহলেই পড়তে হবে বিপদের মুখে

রেশন কার্ড থাকলেই আজই সাবধান হয়ে যান : যদি এই কাজ করে ফেলেন তাহলেই পড়তে হবে বিপদের মুখে
রেশন কার্ড থাকলেই আজই সাবধান হয়ে যান

Sarkari Chakri

নমস্কার বন্ধুরা :-

আপনি কী একজন রেশন গ্রাহক? আপনার নামে কি কোনো রেশন কার্ড (Ration Card) আছে? তাহলে হয়ে যান একজন থেকেই সাবধান। এর কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে যে, প্রতারকদের নজর এবার আপনার উপরে পড়তে পারে। এই প্রতারণা টি ঠিক একই রকমের যেমন ব্যাংকের নাম করে প্রতারকরা যেভাবে আপনার ATM কার্ডের যাবতীয় তথ্য নিয়ে আপনার সঙ্গে প্রতারণা করে।

বর্তমানে দেখা যাচ্ছে যে রেশন গ্রাহকদের নিয়েও এই এটিএম কার্ড এর মত প্রতারণা সামনে এসেছে যেখানে আপনার সামান্য ভুলের জন্যই আপনি হয়ে যেতে পারেন একদম সর্বশান্ত। তাই সবসময়ই থাকুন ALERT।

 এর আগে দেখা গেছে যে, Credit বা Debit বা ATM কার্ডের মেয়াদ ফুরিয়ে যাওয়ার ঠিক কয়েকদিন আগে প্রতারকরা নিজেদের ব্যাংক কর্মী পরিচয় দিয়ে আপনাকে কল করে বলতো যে আপনাকে হয়েছে আপলোড করতে হবে। তার জন্য আপনার আধার নম্বর, প্যান কার্ডের নম্বর, মোবাইল নাম্বার, OTP, এটিএম কার্ডে তথ্য ইত্যাদি কিছু গুরুত্বপূর্ণ জিনিস চাইতেন। কিছু কিছু সময় না বুঝতে পেরে এইসব প্রতারকদের ব্যাংক কর্মী ভেবেই অনেকেই এদের দ্বারা প্রতারিত হয়েছেন। এই কলগুলি সাধারণত মেয়েদের দিয়ে বেশি করানো হতো তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে ছেলেরাও এ ধরনের কল করতো। এখন বর্তমানে ব্যাংকের পক্ষ থেকে নানান রকম সচেতনাম বার্তা প্রচারের ফলে মানুষ অনেকটা হলেও সাবধান হয়েছে। তবুও বয়স্ক মানুষদের এই ধরনের ফাঁদে ফেলে প্রতারকরা নির্দ্বিধায় প্রতারিত করে যাচ্ছেন এখনো। এখন বর্তমানে দেখা যাচ্ছে যে, রেশন গ্রাহকদের সঙ্গেও নাকি এরকম প্রতারণা হচ্ছে।

নিয়ম করে খাদ্য সরবরাহ বিভাগ রেশন গ্রাহকের তালিকা আপডেট করে। এর ফলে বিভিন্ন কারণে অনেকের নামই এই রেশন তালিকা থেকে বাদ যায়। বিশেষ করে কোন মানুষের আর্থিক পরিস্থিতি উন্নতি ঘটলেও তার নাম বাদ পড়ে যায় সরকারের রেশন তালিকা থেকে। ঠিক এই বিষয়টাকেই কাজে লাগাচ্ছে কিছু নিষ্ঠুর প্রতারকরা। তারা নিয়মিত লক্ষ্য রাখতে যে রেশন গ্রাহকদের খাদ্য তালিকা থেকে কোন কোন গ্রাহকের নাম বাদ পরছে। তারপর এই বাদ পড়ে যাওয়া নামের তালিকা যাদের নাম রয়েছে তাদেরকে ফোন করে পুনরায় রেশন তালিকায় নাম তুলে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও কিছু কিছু ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে যে, গ্রাহকদের মোবাইলে SMS এর মাধ্যমে কিছু একটা লিংক পাঠিয়ে তার মধ্যে প্রয়োজনীয় তথ্য দিতে বলছে। এই যে লিংক তারা SMS এর মাধ্যমে পাঠাচ্ছি সেটাই হলো যত নষ্টের গোড়া। এই লিঙ্কটা হচ্ছে এক ধরনের Hacking Tool . এতে ক্লিক করলেই আপনার ব্যাংক একাউন্টে যাবতীয় সমস্ত রকম তথ্য চলে যাবে প্রতারকদের হাতে। আর মুহূর্তের মধ্যেই ফাঁকা হয়ে যাবে আপনার একাউন্ট। 

 তবে শুধু বাদ পড়ে যাওয়া গ্রাহকদের সঙ্গেই নয় কিছু কিছু ক্ষেত্রে যাদের নাম তালিকায় বর্তমানে এখনো রয়ে গেছে, তাদেরকেও টার্গেট করছে এইসব প্রতারকরা। Ration Aadhar Link, Ration Card Update ইত্যাদি এইসব নানা রকম কথা বলে এসএমএস পাঠিয়ে তাতে থাকা এই Hacking Tool বা Link এ ক্লিক করতে বলছে তারা। কিছু না বুঝেছি যে এই লিংকে ক্লিক করার মাধ্যমে বেশ কিছু মানুষ হয়ে গেছে একদম সর্বশান্ত।

এইসব প্রতারণা শিকার ঠেকাতে বর্তমানে খাদ্য সরবরাহ দপ্তর থেকেও নানা রকম প্রচার চালানোর মাধ্যমে জনগণকে সাবধান করা শুরু হয়ে গেছে ইতিমধ্যেই। সেইসঙ্গে খাদ্য সরবরাহ দপ্তর থেকে এটাও বলা হচ্ছে যে, আমরা এইভাবে কোন গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্য জানতে চাই না। তাই এই ধরনের কোনো রকম ফোন কল যদি আপনারা পেয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই তাদের সঙ্গে কোন রকম ব্যক্তিগত তথ্য শেয়ার করবেন না। অথবা খুব বেশি কথা না বাড়িয়ে ফোনটাকে তখনই কেটে দিয়ে নাম্বারটা ব্লক করে দেবেন। যদি প্রয়োজন হয় তো আপনার নিকটবর্তী পুলিশের সাহায্য নিতে পারেন আপনারা।

মূলত এতোটুকুই ছিল আজকের এই প্রতিবেদনের আপডেট। নিউজটা কেমন লাগলো অবশ্যই কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না। আজকের এই প্রতিবেদনটা অবশ্যই আপনাদের বন্ধু-বান্ধব ও পরিবার-আত্মীয় স্বজনদের মধ্যে শেয়ার করে দেবেন। আজকের প্রতিবেদনটা ভালো লেগে থাকলে follow করে পাশে থাকবেন।

Written By :-   Blogger Sujoy Mondal

                      -: THANK YOU :-

Sarkarichakri.co.in আমরা কোন নিয়োগ সংস্থা নয় সরকারি এবং বেসরকারি চাকরির ওয়েবসাইট গুলিতে যে সমস্ত চাকরির খবরের আপডেট দেয় সেগুলো আপনাদের সামনে তুলে ধরাই আমাদের দায়িত্ব তাই আমাদের বিজ্ঞপ্তি পড়ার পর চাকরিতে এপ্লাই করার আগে অবশ্যই সরকারি চাকরির ওয়েবসাইটে গিয়ে বিজ্ঞপ্তিটি কে যাচাই করে নেবেন যদি কোনো অসুবিধা হয় অবশ্যই আমাদের সঙ্গে কন্টাক করতে পারেন অথবা কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করুন

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button