NEWS UPDATE

ভারতীয় রেলে ০২ লক্ষের বেশি শূন্যপদে কর্মী নিয়োগ করা হবে, কি জানালেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব

ভারতীয় রেলে ০২ লক্ষের বেশি শূন্যপদে কর্মী নিয়োগ করা হবে, কি জানালেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব

ভারতীয় রেলে ০২ লক্ষের বেশি শূন্যপদে কর্মী নিয়োগ করা হবে, কি জানালেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব
ভারতীয় রেলে ০২ লক্ষের বেশি শূন্যপদে কর্মী নিয়োগ করা হবে

Vacancies in Indian Railway Alert :

 ভারতীয় রেলে এবার দুই লক্ষের থেকে বেশি নতুন নিয়োগ। এই সম্বন্ধে, বিস্তারিত জানালেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। ভারতীয় রেল হচ্ছে এমন একটি চাকরি নিয়োগ যেটি হলো ভারতীয় সরকারি চাকরিদের সারি তে একদম প্রথম স্থান। এই ভারতীয় রেলে কাজ করার জন্য খুব বেশি শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রয়োজনে পড়তো না। একেবারে ন্যূনতম অষ্টম শ্রেণী পাস যোগ্যতা থেকে শুরু করে উচ্চশিক্ষিত সবাই এখানে চাকরির সুযোগ পেত। কিন্তু এখন এই নিয়মে কিছুটা বদল হয়েছে। কিন্তু এখন চাকরিপ্রার্থীদের ক্ষেত্রে একটাই খারাপ খবর উঠে আসছে যে বিগত কয়েক বছর ধরে নাকি এই নিয়োগ ধীরে ধীরে কমে আসছে। কিন্তু এই সকল প্রশ্নকে উপেক্ষা করে চাকরিপ্রার্থীদের জন্য একটা নতুন খুশির খবর চলে এসেছে।

স্বয়ং রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব জানিয়েছেন যে, এখন বর্তমানে ভারতের রেলে প্রায় আড়াই লক্ষ শূন্য পদে রয়েছে। ভারতের রেল থেকে প্রতি বছর অবসর নেন অনেক কর্মচারী কিন্তু যে পরিমাণে অবসর নেওয়ার কর্মচারীর সংখ্যা সেই পরিমাণে বর্তমানে নতুন নিয়োগ হচ্ছে না। এরকম অভিযোগ করছেন ভারতের বিভিন্ন স্থানে চাকরি প্রার্থীরা।







সম্প্রতি সিপিআইএম রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে একটি হিসেব থেকে জানা গিয়েছে, তাদের মতে নাকি এই মুহূর্তে রেলে মোট 6 লক্ষের মতো শূন্য পদ রয়েছে। কিন্তু তারা এ কথা বলেছে যে, কর্মীরা অবসরপ্রাপ্ত হলে সেই পদটিকেই নাকি তুলে দেয়া হয়েছে রেল দপ্তর থেকে। কিন্তু এই শূন্যবাদ গুলি বিলুপ্ত করা বিষয়টি এখন বেশ অনেকটাই করাকরি হয়েছে। এখন বর্তমানে আধুনিকতার যুগে দিন দিন প্রযুক্তির নানারকম উন্নতি হচ্ছে সেই জন্য অনেক পদের চাকরির ক্ষেত্রে বিলুপ্তি ঘটছে। আরেকটি কারণ হচ্ছে রেলের কিছুটা খরচ কমছে। 

কিন্তু এখন দেশের বিভিন্ন বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি ও চাকরিপ্রার্থীরা এই অভিযোগ তুলছে যে, যেসব পদগুলি রেল দপ্তর থেকে তুলতে হচ্ছে সেই সব পদের কাজ গুলি নাকি ঠিকাদার লাগিয়ে চুক্তিভিত্তিক কর্মী নিয়োগের মাধ্যমে করা হচ্ছে। এইসব পদগুলিকে বিলুপ্ত করার পরেও কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রক যে যে পদগুলিতে সরাসরি করণীয়কে প্রয়োজন বলে মনে করেছেন সেগুলি সংখ্যা আড়াই লক্ষ জোনে চাকরি প্রার্থীরা একটা আশার আলো দেখছেন।

তারপরে আরেকটা কথা, যেহেতু রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব সংসদে কথাটি তুলে ধরেছেন তাই, অনেক চাকরি প্রার্থীরাই মনে করছে যে কিছুদিনের মধ্যেই রেলে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি হতে পারে। রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব এর পাশাপাশি আর একটা কথাও বলেছেন যে, ভারতীয় রেলে যে কয়টি জোন রয়েছে তার সবকটি মিলিয়ে শূন্য পদের সংখ্যা বর্তমানে 2 লক্ষ 48 হাজার 859 জন। আগামী বছর লোকসভা ভোট হওয়ার কথা রয়েছে। এ ভোটের আগে রেল দপ্তরে বিপুল পরিমাণ শূন্য পদ সরকার একটা বিরাট মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাছাড়া বারবার দাবি হচ্ছে যে, যেহেতু বর্তমান নিয়ে বিপুল পরিমাণ শূন্য পদ রয়েছে রেল দপ্তরে। তাই যে সমস্ত কর্মী কর্মরত রয়েছেন তাদের ওপর নাকি এখন কাজে প্রচুর প্রেসার রয়েছে। এই সকল পরিস্থিতি কথা মাথায় রেখে মাসখানেকের মধ্যে যে রেল দপ্তরে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি বেরোতে পারে বলে অনেকেই মনে করছেন।

Sarkarichakri.co.in আমরা কোন নিয়োগ সংস্থা নয় সরকারি এবং বেসরকারি চাকরির ওয়েবসাইট গুলিতে যে সমস্ত চাকরির খবরের আপডেট দেয় সেগুলো আপনাদের সামনে তুলে ধরাই আমাদের দায়িত্ব তাই আমাদের বিজ্ঞপ্তি পড়ার পর চাকরিতে এপ্লাই করার আগে অবশ্যই সরকারি চাকরির ওয়েবসাইটে গিয়ে বিজ্ঞপ্তিটি কে যাচাই করে নেবেন যদি কোনো অসুবিধা হয় অবশ্যই আমাদের সঙ্গে কন্টাক করতে পারেন অথবা কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করুন

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button